সোমবার , 17 ডিসেম্বর 2018

দূর্যোগকালীন সময়ে গবাদি পশুর জন্য করনীয়

দূর্যোগকালীন সময়ে গবাদি পশুর দিকে বিশেষভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে। এ সময়ে যে সব দিকে খেয়াল রাখতে হবে তা হলো:

খরা বা অতিরিক্ত তাপমাত্রায় করনীয়:

  • গবাদি পশুকে শেড বা গাছের নিচে ছায়াযুক্ত স্থানে রাখতে হবে ।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশুদ্ধ ঠান্ডা খাবার পানি সরবরাহ করতে হবে এবং পানির পাত্রের সংখ্যা বাড়িয়ে দিতে হয় । পানির পাত্রে বেশি সময় ধরে পানি জমিয়ে রাখা যাবে না ।
  • তাপমাত্রা কমনোর জন্য শেডের চালের উপর সম্ভব হলে পানি স্প্রে করতে হবে ।
  • ট্যাংক থেকে পানি সরবরাহ করা হলে ট্যাংকটিকে কোন কিছু দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে যাতে ট্যাংকের পানি গরম না হতে পারে ।
  • ঘরে পর্যাপ্ত বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা করেতে হবে । প্রয়োজনে সিলিং ফ্যান স্থাপন করতে হবে ।
  • গরমের সময় পশুর ঘনত্ব কমিয়ে দিতে হবে ।
  • গরমে পশুর খাদ্য গ্রহন কমে যায় তাই খাদ্যে প্রোটিন সমৃ্দ্ধ খাবার সরবারাহ করতে হবে ।
  • অত্যাধিক গরমের সময় সন্ধা, রাতে ও সকালে খাবার সরবরাহ করতে হবে ।

অতিরিক্ত ঠান্ডাকালীন সময়ে করণীয়:

  • অতিরিক্তি ঠান্ডার সময়ে গবাদি পশুর ঠান্ডা বাতাস না লাগে সে জন্য ঘরের বা শেডের বেড়ার ব্যবস্থা করতে হবে । বেড়া দেয়া সম্ভব না হলে চারদিকে চটের/প্লাষ্টিকের পর্দা ঝুলিয়ে দিতে হবে ।
  • টিনের শেডের উপর চট/খড় বিছিয়ে দিতে হবে ।
  • প্রচন্ড ঠান্ডার সময় গবাদি পশুর গায়ে চট দিয়ে ঢেকে দিতে হবে ।
  • সম্ভব হলে শেডের ভিতর আগুন জ্বালিয়ে (যাতে ক্ষতি না হয়) তাপমাত্রা বড়াতে হবে ।
  • বিদ্যুৎতের ব্যবস্থা থাকলে ১০০-২০০ ওয়াটের ভাল্ব লাগিয়ে তাপমাত্রা বাড়াতে হবে ।প্রয়োজনে বৈদ্যুতিক হিটার লাগিয়ে শেডের তাপমাত্রা বাড়ানো যেতে পারে ।
  • সুষম খাদ্য সরবরাহ করতে হবে ।
  • ঠান্ডার সময় গর্ভবতী গাভী ও বাছুররের প্রতি বিশেষভাবে নজর রাখতে হবে ।

ঝড়, বৃষ্টি ও বন্যার সময় করনীয়:

  • গবাদি পশু ঝড়/বৃষ্টিতে বিশেষ করে বাছুর যাতে না ভিজে সেদিকে নজর রাখতে হবে ।
  • বন্যায় পূর্বাভাস পেলে বা বন্যা শুরু হলে গবাদি পশুকে উচু জায়গায় স্থানান্তর, নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় সম্ভব না হলে সরকারী প্রতিষ্ঠান বা সড়কে আশ্রয়ের ব্যবস্থা নিতে হবে ।
  • বৃষ্টিতে আমাদের দেশে গবাদি পশুর খাদ্য বিশেষ করে ধানের খড় নষ্ট বা পঁচে যায় এজন্য এসব গো খাদ্য আধুনিক পদ্ধতিতে সাইলেজ তৈরি করে অথবা ইউরিয়া দ্বারা খড় প্রক্রিয়াজত করে সংরক্ষণ করে রাখা যেতে পারে ।
  • বন্যা ও অতিবৃষ্টির আগে কিছু খাদ্য সংরক্ষণ করে রাখতে হবে । বিশেষ করে খড়, হে ও দানাদার খাদ্য সংরক্ষণ করে রাখা যেতে পারে ।
  • বন্যার সময় বেশি সমস্যা হলে উঁচু স্থান না পাওয়া গেলে নৌকায় অথবা মাচার উপর গবাদি পশুকে রাখতে হবে।
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes